ময়মনসিংহ, , ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ অনলাইন সংস্করণ

দুর্নীতি দমনকারী নিজেই দুর্নীতিতে জড়াবেন না: দুদক কমিশনার

  নিজস্ব প্রতিবেদক

  প্রকাশ : 

দুর্নীতি দমনকারী নিজেই দুর্নীতিতে জড়াবেন না: দুদক কমিশনার
দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) কমিশনার ড. মো. মোজাম্মেল হক খান বলেছেন, দুর্নীতি দমনকারী নিজেই দুর্নীতিগ্রস্ত হবেন না। এমন অবস্থা থেকে নিজেকে বাঁচাতে হবে।দুদক ও কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের (সিটিটিসি) উদ্যোগে সপ্তাহব্যাপী যৌথ প্রশিক্ষণ কর্মশালা উদ্বোধনকালে দুদক কর্মকর্তাদের উদ্দেশে এ কথা বলেন তিনি।ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে শনিবার সকালে সপ্তাহব্যাপী এ যৌথ প্রশিক্ষণ কর্মশালা উদ্বোধন করা হয়। বিশেষ অতিথি ছিলেন ডিএমপি কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম, দুদকের মহাপরিচালক (আইসিটি ও প্রশিক্ষণ) একেএম সোহেল। 
সভাপতিত্ব করেন ডিএমপির অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (সিটিটিসি) মো. মনিরুল ইসলাম।ড. মো. মোজাম্মেল হক খান আরও বলেন, একসময় দুদককে নিয়ে মানুষ ব্যঙ্গ করত। সময় এখন ইউটার্ন নিয়েছে, ব্যঙ্গ করার সুযোগ নেই। অবৈধ কোনো কিছুর কারণে অস্বাভাবিক কিছু তৈরি হয়। হঠাৎ করে ‘আঙ্গুল ফুলে কলা গাছ’ এমনি এমনি হয় না। এর পেছনে অবশ্যই দুর্নীতি রয়েছে। আমরা সবাই মুখে অনেক সুন্দর কথা বলি কিন্তু বাস্তবে তা করি না। এটা থেকে আমাদের বেরিয়ে আসতে হবে।তিনি বলেন, দুদকে ২৪শ’ জনবল অনুমোদিত থাকলেও বর্তমানে কাজ করছে প্রায় ১১শ’ লোক। আমাদের জনবলের সংকট রয়েছে। 
যারা রয়েছে তারা সবাই সমান পারদর্শী নয়। তাই ক্যাপাসিটি বিল্ডিংয়ের জন্য ট্রেনিং ও ইক্যুইপমেন্টের দরকার। ২-৩ বছর আগেও আমাদের কনভিকশন রেট ছিল প্রায় ৩০ শতাংশ। বর্তমানে তা প্রায় ৭০ শতাংশ। এই সফলতার পেছনে পুলিশ ও বাংলাদেশ ব্যাংক কাজ করেছে। দুর্নীতির বিষয় পাঠ্যপুস্তকে থাকা উচিত। আমরা স্কুল কলেজের যাচ্ছি। অ্যাসেম্বলিতে দুর্নীতিবিরোধী শপথ পড়ানো হচ্ছে। এই প্রশিক্ষণের ফলে দুদকের অফিসারদের কর্মক্ষেত্রে অনেক পরিবর্তন আসবে বলে আমি প্রত্যাশা করি।
  • সর্বশেষ - জাতীয়