ঢাকা, , ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ আপডেট : কিছুক্ষণ আগে

মারের ভয়ে হেলমেট মাথায় পেঁয়াজ বিক্রি

  নিজস্ব প্রতিবেদক

  প্রকাশ : 

মারের ভয়ে হেলমেট মাথায় পেঁয়াজ বিক্রি

বিহারের পাটনায়ও মাথায় হেলমেট পরে পেঁয়াজ বিক্রি করছেন এক কর্মী। ছবি:


ভারতেও পেঁয়াজের ঝাঁজ বড় কড়া। আপেল-কমলার মতো ফলের চেয়ে তুলনামূলকভাবে পেঁয়াজের দামের তেজ বেশি। দাম নিয়ে সমস্যায় মানুষ। কম দামে সাধারণ মানুষের জন্য পেঁয়াজ বিক্রি করা হচ্ছে সরকারের পক্ষ থেকে। বিক্রির সময় যেন জনরোষের শিকার হতে না হয়, সে জন্য মাথায় হেলমেট পরে পেঁয়াজ বিক্রি করছেন কর্মীরা। হেলমেট মাথায় পেঁয়াজ বিক্রির ছবি লোকজনের কাছে রসাল ঘটনা হয়ে উঠেছে।

ভারতের বিহার রাজ্যর রাজধানী পাটনায় ঘটেছে এ ঘটনা।

এনডিটিভি অনলাইনের খবরে জানানো হয়, চারদিকে বন্যা আর উৎপাদন কম হওয়ায় দিন দিন ভারতে দাম বেড়েছে পেঁয়াজের। কিছুদিন আগেও ৪০-৫০ রুপি কেজি দরে বিক্রি হওয়া পেঁয়াজ এখন ৮০ থেকে ১০০ রুপিতে বিক্রি হচ্ছে। এমন পরিস্থিতি বিভিন্ন রাজ্যে সরকার কম মূল্যে গাড়িতে করে পেঁয়াজ বিক্রি করছে। বিহারের পাটনায়ও বিক্রি হচ্ছে। ৩৫ রুপি কেজি পেঁয়াজ বিক্রি করছে স্টেট কো-অপারেটিভ মার্কেটিং ইউনিয়ন লিমিটেড। কিন্তু বিক্রির সময় যেন জনরোষের শিকার হতে না হয়, সে জন্য মাথায় হেলমেট পরে কাজ করছেন ওই সংস্থার কর্মীরা।

আজ শনিবার সকালে পাটনার স্টেট কো-অপারেটিভ মার্কেটিং ইউনিয়ন লিমিটেডের অফিসের সামনে সংস্থার কর্মীরা ভ্রাম্যমাণ গাড়ি থেকে পেঁয়াজ বিক্রি করছেন। গাড়ির সামনে লম্বা লাইন। ঘণ্টার পর ঘণ্টা দাঁড়িয়ে থেকে মানুষ পেঁয়াজ কিনছে। কোনো কোনো দিন মানুষকে সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত লাইনে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। তবে পেঁয়াজের জোগান কম থাকায় জনরোষ তৈরি হতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন কর্মীরা। নিজেদের নিরাপত্তার জন্য মাথায় হেলমেট পরে কাজ করছেন তাঁরা।

পেঁয়াজ কেনার ভিড় সামলাতে ব্যস্ত কো-অপারেটিভ কর্মী রোহিত কুমার। বার্তা সংস্থা এএনআইকে তিনি বলেন, ‘নিজেদের নিরাপত্তার স্বার্থে আমরা হেলমেট পরে কাজ করছি। প্রশাসনের কাছে আবেদন জানানো সত্ত্বেও কোনোও নিরাপত্তারক্ষীর ব্যবস্থা করা হয়নি। গতকাল শুক্রবার বিহারের আরাহ জেলায় পেঁয়াজ বিক্রির সময় খেপে গিয়ে স্থানীয় জনতা বিক্রেতাদের লক্ষ্য করে পাথর ছুড়ে মারে। এতে অনেকে জখম হয়েছেন। কারও কারও মাথাও ফেটে গিয়েছে। তারপরও কোনো নিরাপত্তা দেওয়া হচ্ছে না আমাদের। বাধ্য হয়ে আমরা হেলমেট পরেছি। ’

মনীষ নামে এক কর্মী বলেন, ‘আমরা গাড়ি নিয়ে কলোনিগুলোতে গিয়ে গিয়ে পেঁয়াজ বিক্রি করছি। সব জায়গাতেই প্রচুর মানুষ ভিড় করছে। ফলে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি আমরা।’

পাটনায় পেঁয়াজ কিনতে লাইনে দাঁড়িয়ে আছেন শিলা দেবী। তিনি সকাল ১০টার দিকে এএনআইকে বলেন, ‘আমি এখানে শনিবার ভোর ৪টা থেকে দাঁড়িয়ে। বাজারে প্রতি কেজি পেঁয়াজ ১০০ রুপি। এখানে ৩৫ রুপিতে কিনতে পারি।’