, ১৩ আশ্বিন ১৪২৮ অনলাইন সংস্করণ

মুমূর্ষু রোগীর সেবাতেই ঈদের আনন্দ পান তারা

  নিজস্ব প্রতিবেদক

  প্রকাশ : 

মুমূর্ষু রোগীর সেবাতেই ঈদের আনন্দ পান তারা

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) এর কেবিন ব্লকের ডিউটি স্টেশনে আজ বুধবার পবিত্র ঈদুল আজহার দিন সকাল আনুমানিক ১১টার সময় দাঁড়িয়ে করোনা রোগীদের ফাইল দেখছেন একজন আবাসিক চিকিৎসক। সংক্রমণের ঝুঁকি থেকে বাঁচতে নিজের পুরো শরীর পিপিই, মাস্ক, হ্যান্ডগ্লাবস, ফেসশিল্ড ও শো-কভারে আবৃত করেছেন তিনি। ফাইল দেখে দেখে কোন কেবিনের কোন রোগীকে কী ওষুধ বা ইনজেকশন দিতে হবে তা লিখছিলেন। চিকিৎসকের নির্দেশনা অনুসারে নার্সসহ অন্যান্যরা ট্রলিতে করে ওষুধ ও ইনজেকশন নিয়ে রোগীকে দিচ্ছিলেন।

ঈদের দিনে ডিউটি করতে কেমন লাগে এমন প্রশ্নের জবাবে জয়শ্রী দাস নামে ওই চিকিৎসক বলেন, মুসলমান সহকর্মীদের পরিবার পরিজনের সঙ্গে ঈদ করতে দেয়ার সুযোগ করে দিতে আমরা ডিউটি করি। আর করোনাকালীন সময়ে মুমূর্ষু রোগীদের চিকিৎসাসেবা দান করার মধ্যে আলাদা আনন্দ আছে। এখানেই তাদের ঈদ আনন্দ বলেও জানান তিনি।

ত্যাগের মহিমায় আজ পবিত্র ঈদুল আজহা পালিত হচ্ছে। সরকারি ছুটি থাকলেও সরকারি ও বিভিন্ন স্বায়ত্তশাসিত হাসপাতাল বিশেষ করে করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে ডাক্তার, নার্সসহ অন্যান্য অসংখ্য কর্মকর্তা-কর্মচারী ঈদের দিন রোগীদের চিকিৎসাসেবা দিয়ে যাচ্ছেন।

বিভিন্ন করোনা হাসপাতালে আজ ঈদের দিনও রোগী এসেছে। নতুন রোগীদের অধিকাংশই ঢাকার বাইরের বিভিন্ন জেলার। তারা জানিয়েছেন, স্থানীয় জেলা ও উপজেলা হাসপাতালে করোনার ভালো চিকিৎসা নেই। প্রথম তিন চারদিন সেখানে চিকিৎসা নিলেও অবস্থার অবনতি হলে ঢাকায় নিয়ে আসেন।

jagonews24

কুমিল্লার মুরাদনগরের একজন গৃহবধূকে অ্যাম্বুলেন্স ভাড়া করে আজ ঈদের দিন দুপুর ১২টায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসেন তার বোনসহ কয়েকজন। হাসপাতালে ভর্তির জন্য বাইরে অ্যাম্বুলেন্সে অপেক্ষা করছিলেন তারা। রোগীর বোন জানান, তার বোনের গতকাল থেকে তীব্র শ্বাসকষ্ট ও জ্বর। তিনি খবর পেয়ে মুরাদনগর গিয়ে বোনকে নিয়ে ঢাকায় আসেন।

jagonews24

সরেজমিন পরিদর্শনকালে বিভিন্ন হাসপাতালের চিকিৎসক-নার্সসহ অন্যান্য স্টাফদের নতুন ভর্তি রোগীদের জরুরি ভিত্তিতে চিকিৎসাদান ছাড়াও সাধারণ ওয়ার্ড কেবিন, এইচডিইউ ও আইসিইউতে চিকিৎসাধীন রোগীদের সেবায় রুটিন করে ডিউটি করতে দেখা যায়।

jagonews24

ঢামেক হাপসপাতালের একজন কর্মকর্তা বলেন, দুই হাজার ৬০০ বেডের এ হাসপাতালে সবসময় রোগীর চাপ থাকে। ঈদের দিন বলে ছুটি থাকে না। তারা ঈদের দিনটির খুশি রোগীদের সঙ্গে ভাগাভাগি করে নন।

ঈদ উপলক্ষে আজ হাসপাতালগুলোতে রোগীদের সরকারিভাবে উন্নত মানের খাবার পরিবেশন করতে দেখা গেছে।

  • সর্বশেষ - জাতীয়