, ১০ কার্তিক ১৪২৮ অনলাইন সংস্করণ

পরকীয়া সন্দেহে বিচ্ছেদের ৩ বছর পর কলেজছাত্রীকে কোপাল যুবক

  নিজস্ব প্রতিবেদক

  প্রকাশ : 

পরকীয়া সন্দেহে বিচ্ছেদের ৩ বছর পর কলেজছাত্রীকে কোপাল যুবক

পরকীয়া সন্দেহে বিবাহ বিচ্ছেদের তিনবছর পর কলেজছাত্রীকে রাস্তায় ফেলে কুপিয়ে ক্ষতবিক্ষত করেছে সাবেক স্বামী। স্ত্রীর পরকীয়ার কারণে সুখের সংসার ভেঙে গেছে বলে দাবি ওই যুবকের।

গুরুতর আহত কলেজছাত্রীকে (২০) ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনার কিছুক্ষণ পরই অভিযুক্ত যুবক শাহিন আলমকে (২১) আটক করে পুলিশে দিয়েছে স্থানীয়রা।

শনিবার (২৮ আগস্ট) বিকেলে জামালপুর পৌর শহরের তমালতলা মোড়ে এ ঘটনা ঘটে।

ভুক্তভোগীর বান্ধবী সুমি আক্তার জানান, শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলার গুরুচরণ গ্রামের বাসিন্দা ও জামালপুর শহরের মুন নার্সিং হোমের নার্সিং বিভাগের ওই ছাত্রীর সঙ্গে একই গ্রামের আবু জসিমের ছেলে শাহিন আলমের বিয়ে হয়।বিয়ের পর থেকেই শাহিনের সন্দেহ-তার স্ত্রী পরকীয়া করে। এ নিয়ে তিন বছর আগে তাদের বিচ্ছেদ হয়।

এদিকে, বিচ্ছেদের পরও শাহিন তাকে উত্যক্ত করে আসছিল। শনিবার বিকেল ৫টার দিকে ওই ছাত্রী অটোরিকশা করে বাসায় ফিরছিলেন। এসময় অতর্কিতভাবে ওপর হামলা চালায় শাহীন। পরে স্থানীয়রা গুরুতর অবস্থায় জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করলে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়।

জামালপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল ইসলাম খান জানান, মেয়েটি তার বান্ধবীর সঙ্গে অটোরিকশাযোগে বাসায় ফেরার সময় ওই যুবক হামলা চালায়। এসময় তাকে কুপিয়ে ক্ষতবিক্ষত করে। ঘটনার পর পরই অভিযুক্তকে আটক করা হয়েছে।

  • সর্বশেষ - মহানগর