, ৯ মাঘ ১৪২৮ অনলাইন সংস্করণ

আধঘণ্টায় নিম্নমুখী সূচক, লেনদেনে ধীরগতি

  নিজস্ব প্রতিবেদক

  প্রকাশ : 

আধঘণ্টায় নিম্নমুখী সূচক, লেনদেনে ধীরগতি

সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবস সোমবার মূল্যসূচকের নিম্নমুখী প্রবণতার মাধ্যমে শেয়ারবাজারে লেনদেন শুরু হয়েছে। সেই সঙ্গে লেনদেনেও কিছুটা ধীরগতি দেখা যাচ্ছে।

প্রথম আধঘণ্টার লেনদেনে প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান মূল্যসূচক ১০ পয়েন্ট কমে গেছে। লেনদেন হয়েছে তিনশ কোটি টাকার কম।

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের পাশাপাশি অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেও (সিএসই) লেনদেনে ধীরগতি দেখা যাচ্ছে। পাশাপাশি দাম কমার তালিকায় নাম লিখিয়েছে বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠান। সেই সঙ্গে নিম্নমুখী ধারায় রয়েছে মূল্যসূচক।

এদিন ডিএসইতে লেনদেন শুরু হতেই একেরপর এক প্রতিষ্ঠানের দরপতন হতে থাকে। এতে প্রথম ছয় মিনিটেই ডিএসই’র প্রধান মূল্যসূচক ডিএসই-এক্স ৩০ পয়েন্ট কমে যায়।

এরপর সূচক কিছুটা ঊর্ধ্বমূখী হয়। ১০টা ২০ মিনিটে ডিএসই’র প্রধান মূল্যসূচক আগের দিনের তুলনায় ২০ পয়েন্ট বেড়ে যায়। তবে সূচকের এ ঊর্ধ্বমূখী প্রবণতা বেশি সময় স্থায়ী হয়নি।

এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত সকাল ১০টা ৪৪ মিনিটের লেনদেন শেষে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসই-এক্স আগের তুলনায় ২৮ পয়েন্ট কমেছে। অপর দুই সূচকের মধ্যে ডিএসই শরিয়াহ্ ৮ পয়েন্ট কমেছে। আর ডিএসই-৩০ সূচক কমেছে ১৮ পয়েন্ট।

এ সময় পর্যন্ত ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া ১৫৪টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দাম বাড়ার তালিকায় নাম লিখিয়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ১৬৫টির। আর ৫১টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে। লেনদেন হয়েছে ৩৫৬ কোটি ৪৬ লাখ টাকা।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ২৩ পয়েন্ট কমেছে। লেনদেন হয়েছে ৮ কোটি ২০ লাখ টাকা। লেনদেন অংশ নেওয়া ১৮৪ প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দাম বেড়েছে ৮১টির, কমেছে ২৮টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৪টির।

এর আগে গত সপ্তাহের পাঁচ কার্যদিবসেই শেয়ারবাজারে বড় উত্থান হয়। এতে গত সপ্তাহে ডিএসই’র প্রধান মূল্যসূচক ডিএসই-এক্স বাড়ে ২৭৭ দশমিক ৬৯ পয়েন্ট বা ৩ দশমিক ৯৮ শতাংশ।

আর বাছাই করা ভালো কোম্পানি নিয়ে গঠিত ডিএসই-৩০ সূচক বাড়ে ১৫০ দশমিক ৩০ পয়েন্ট বা ৬ দশমিক শূন্য ২ শতাংশ এবং ইসলামী শরিয়াহ ভিত্তিতে পরিচালিত কোম্পানি নিয়ে গঠিত ডিএসই শরিয়াহ্ সূচক বাড়ে ৮৩ দশমিক ৬৫ পয়েন্ট বা ৫ দশমিক ৫৪ শতাংশ।

এই বড় উত্থানের পর রোববার শেয়ারবাজারে লেনদেন শুরু হয় বড় উত্থান দিয়ে। তবে লেনদেন শেষ হয় এক প্রকার ধস দিয়ে। লেনদেনের প্রথম ঘণ্টায় ডিএসইর প্রধান সূচক ৭০ পয়েন্ট বাড়লেও, লেনদেন শেষে সূচকটি ৫৬ পয়েন্ট কমে যায়।

  • সর্বশেষ - অর্থ-বাণিজ্য