ময়মনসিংহ, , ২০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ অনলাইন সংস্করণ

প্রয়োজনে করোনা আক্রান্ত এলাকা লকডাউন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

  অনলাইন ডেস্ক

  প্রকাশ : 

প্রয়োজনে করোনা আক্রান্ত এলাকা লকডাউন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী
স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। ছবি: সংগৃহীত

কোনো এলাকা যদি করোনা ভাইরাসে বেশি আক্রান্ত হয়ে যায়, প্রয়োজনে সেসব এলাকা লকডাউন করা হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। তিনি বলেন, ‘লকডাউন করাটাই আক্রান্ত এলাকার জন্য একমাত্র উপায়, যেখানে যেখানে প্রয়োজন হবে, সেখানে সেখানে লকডাউন করা হবে।’ আজ বৃহস্পতিবার (১৯মার্চ) সচিবালয়ে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে ব্রিফিংকালে তিনি এসব কথা বলেন।

চায়নাতে লকডাউনের মাধ্যমে করোনাকে নিয়ন্ত্রণে নিয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘অন্যান্য দেশও চায়নাকে অনুসরণ করছে। যদি আমাদের পরিস্থিতির আরও অবনতি ঘটে এবং আমাদের কোনো এলাকা যদি বেশি আক্রান্ত হয়ে যায়, আমরাও অবশ্যই সে এলাকা লকডাউনে নিয়ে যাবো।

মন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের দেশের মানুষকে রক্ষা করতে হবে করোনা থেকে। লকডাউন করাটাই আক্রান্ত এলাকার জন্য একমাত্র উপায়। যার মাধ্যমে আমরা ভাইরাসটি ছড়িয়ে যাওয়া নিয়ন্ত্রণে নিতে পারবো।’

কোন এলাকা লকডাউন করা হতে পারে, এ সম্পর্কে কোনো ধারণা আছে কি না, কিংবা কোন এলাকায় বিদেশিরা আছে, এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘বিদেশিরা নেই। আমাদের দেশের লোকেরাই। অর্থাৎ, প্রবাসীরা যারা আসে, এর মধ্যে দু-একটি এলাকার খবর আমাদের কাছে আসে। এটা হলো— মাদারীপুর, ফরিদপুর এলাকা। আরেকটা আছে শিবচর এলাকা। এসব এলাকাতে বেশি করে দেখা যাচ্ছে। যদি অবণতি ঘটে। তাহলে আমরা লকডাউনের দিকে যাবো।’

জাহিদ মালেক বলেন, `করোনা মোকাবেলায় সব ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। সব জেলার থেকে প্রতিদিন আপডেট তথ্য নেওয়া হচ্ছে। দুই হাজার করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগীকে বর্তমানে চিকিৎসা দেওয়ার ব্যবস্থা রয়েছে। বড় পরিসরের প্রয়োজন হলে সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধানে ইজতেমা ময়দানে কোয়ারেন্টাইনে সন্দেহভাজনদের নেওয়া হবে।’ আক্রান্তদের সেখানে চিকিৎসা দেওয়া হবে বলে জানান মন্ত্রী।

  • সর্বশেষ - রাজনীতি