, ১২ বৈশাখ ১৪৩১ অনলাইন সংস্করণ

ময়মনসিংহ সদরে ‘ট্রাক’ প্রতীকের বিজয় নিশ্চিত করতে সর্বস্তরের জনগণ একজোট

  বিশেষ প্রতিবেদক

  প্রকাশ : 

ময়মনসিংহ সদরে ‘ট্রাক’ প্রতীকের বিজয়  নিশ্চিত করতে সর্বস্তরের জনগণ একজোট

অষ্টম বিভাগ ময়মনসিংহের গুরুত্বপূর্ণ ময়মনসিংহ-৪ সদর আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী আলহাজ্ব মোঃ আমিনুল হক শামীমের ট্রাক প্রতীকের বিজয় নিশ্চিত করতে সর্বস্তরের জনগণ একজোট হয়েছেন। মাঠে অবস্থান করছেন হাজার হাজার সমর্থক। সম্মানজনক ভোটে শামীমকে বিজয়ী করতে সমর্থকরা বৃহস্পতিবার রাত পর্যন্ত নির্বাচনী মাঠ কাঁপিয়েছেন। একযোগে চলেছে ব্যাপক গণসংযোগ ও প্রচার-প্রচারণা। পছন্দের ‘ট্রাক’ প্রতীকের পক্ষে শোডাউন হয়েছে প্রতিটি এলাকায়। ময়মনসিংহ মহানগরের ৩৩টি ওয়ার্ড এবং সদর উপজেলার ১১টি ইউনিয়নের সর্বত্র ট্রাক প্রতীকের ছোট-বড় মিছিল ছিলো চোখে পড়ার মতো। শুক্রবার সকালে বন্ধ হয়ে গেছে নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা। সূত্র মতে, রবিবার সকাল পর্যন্ত এলাকায় এলাকায় ভোট পাহারায় নিয়োজিত থাকবেন আমিনুল হক শামীমের সমর্থকরা।

নির্লোভ ও হেভিওয়েট প্রার্থী আমিনুল হক শামীমের ট্রাক প্রতীকের বিজয় নিশ্চিত করতে মাঠে নামেন আওয়ামী লীগ, সহযোগী ও অঙ্গসংগঠনের একাংশের বিপুল সংখ্যক নেতা-কর্মী ও সমর্থক, ব্যবসায়ী ও শ্রমিকদের বড় অংশ, জনপ্রতিনিধি, সুশীল সমাজসহ বিশাল সমর্থক গোষ্ঠি। অন্যদিকে ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের অধিকাংশ কাউন্সিলর সরাসরি নির্বাচনী মাঠে নামায় ভোটের চিত্র পাল্টে গেছে। ১১টি ইউনিয়ন পরিষদের কয়েকজন বর্তমান ও সাবেক চেয়ারম্যান ‘ট্রাক’ প্রতীকের পক্ষে সৃষ্টি করেছেন ব্যাপক জনমত। অপরদিকে ভিন্ন ভিন্ন কৌশলে নির্বাচনী মাঠ চষে বেড়ান ট্রাক প্রতীকের বিপুল সংখ্যক সমর্থক। নানান কারণে নির্বাচনী আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছেন সকলের প্রিয়মুখ আলহাজ্ব মোঃ আমিনুল হক শামীম। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষক মহলের দৃষ্টিতেও রয়েছে তার সুদৃঢ় অবস্থান।


স্বতন্ত্র প্রার্থী আমিনুল হক শামীম ময়মনসিংহ মহানগর ও সদর উপজেলার ১১টি ইউনিয়নের গ্রাম থেকে গ্রামান্তর সবার কাছে নির্লোভ ও পরোপকারী হিসেবে পরিচিত। নানান কারণে গুরুত্বপূর্ণ শামীম দেশের অন্যতম শিল্প ও পর্যটন উদ্যোক্তা। তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে ৩০ বারের অধিক বিভিন্ন দেশ ভ্রমণ করেন। রাজনীতি ও সমাজসেবায় নিবেদিতপ্রাণ শামীমকে ঘিরে আওয়ামী লীগ, সহযোগী ও অঙ্গসংগঠনের নেতা-কর্মীদের একাংশসহ সর্বস্তরের জনগণের মধ্যে চলছে ব্যাপক তোড়জোড়। তাকে বিবেচনা করা হয় জনপ্রিয় প্রার্থী হিসেবে। ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল বলেন, সদর আসনের সর্বস্তরের ভোটার নির্ভয়ে ট্রাক প্রতীকে ভোট প্রদান করবেন। শামীম সম্মানজনক ভোট ব্যবধানে বিজয়ী হবেন।

ময়মনসিংহ নাগরিক আন্দোলনের সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার নূরুল আমিন কালাম দৈনিক জাগ্রত বাংলাকে জানান, অবহেলিত সদর উপজেলাবাসীর উন্নয়নের জন্য সর্বস্তরের ভোটার ট্রাক প্রতীকের পক্ষে একজোট হয়েছেন। কাঙ্খিত উন্নয়ন কর্মকাণ্ড বাস্তবায়ন করে সর্বস্তরের মানুষের স্বপ্ন পূরণ করতে পারবেন একমাত্র আমিনুল হক শামীম। তিনি বলেন, যোগ্য ও গ্রহণযোগ্য প্রার্থী হিসেবে ভোটাররা তাকেই বেছে নিয়েছেন। শামীম প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত ‘স্মার্ট বাংলাদেশ’ বিনির্মাণে সম্পৃক্ত থেকে ‘স্মার্ট ময়মনসিংহ সদর’ গড়ার অঙ্গিকার করেছেন। তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সকলের অংশগ্রহণের জন্য নির্বাচন উন্মুক্ত করে দিয়েছেন। এ কারণেই আওয়ামী লীগ, সহযোগী ও অঙ্গসংগঠনের নেতা-কর্মী ও সমর্থকরা ‘ট্রাক’ প্রতীকের পক্ষে কাজ করছেন।


  • সর্বশেষ - আলোচিত খবর