, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০ অনলাইন সংস্করণ

২৫ রানে ৯ উইকেট হারিয়ে সিরিজ খোয়াল আফগানিস্তান

  স্পোর্টস ডেস্ক

  প্রকাশ : 

২৫ রানে ৯ উইকেট হারিয়ে সিরিজ খোয়াল আফগানিস্তান

তিনশ ছাড়ানো লক্ষ্য তাড়ায় শুরুতে উইকেট হারানো দলকে টানলেন ইব্রাহিম জাদরান ও রেহমাত শাহ। তাদের দুইজনের ফিফটিতে পথেই ছিল আফগানিস্তান। কিন্তু এরপর হুট করে তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়ল দলটির ব্যাটিং। ২৫ রানে ৯ উইকেট হারিয়ে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বড় হারের তেতো স্বাদ পেল আফগানরা। পাল্লেকেলেতে রবিবার (১১ ফেব্রুয়ারি) দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ১৫৫ রানে জিতেছে শ্রীলঙ্কা। ৩০৮ রান তাড়ায় ১৫৩ রানে গুটিয়ে গেছে আফগানিস্তান। ১০ রানে তুলেতে তারা হরিয়েছে শেষ ৮ উইকেট। টানা দুই জয়ে তিন ম্যাচের সিরিজ জিতে নিল স্বাগতিকরা। প্রথম ম্যাচে তাদের জয় ছিল ৪২ রানে।

শ্রীলঙ্কাকে বিশাল এই সংগ্রহ এনে দেওয়ার কারিগর কুসাল মেন্ডিস, সাদিরা সামারাউইক্রামা, চারিথ আসালাঙ্কা ও জানিথ লিয়ানাগে। চারজনই করেন ফিফটি। তবে অল্পের জন্য সেঞ্চুরির স্বাদ পাননি আসালাঙ্কা। ৭৪ বলে ৯৭ রানে অপরাজিত থাকা ব্যাটসম্যান জেতেন ম্যাচ সেরার পুরস্কার। তার ইনিংসটি গড়া ২ ছক্কা ও ৯ চারে। ১ উইকেটে ১২৮ রান থেকে আফগানদের দ্রুত গুঁড়িয়ে দেওয়ার পথে বড় অবদান রাখেন ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা। ২৭ রানে ৪ উইকেট নেন এই লেগ স্পিনার। দুটি করে প্রাপ্তি দিলশান মাদুশাঙ্কা ও আসিথা ফার্নান্দোর।

রান তাড়ায় সপ্তম ওভারে দলীয় ৩১ রানে রহমানউল্লাহ গুরবাজকে হারায় আফগানিস্তান। সেই ধাক্কা সামাল দিয়ে দলকে কক্ষপথে রাখেন ইব্রাহিম ও রেহমাত। দারুণ ব্যাটিংয়ে ৯৭ রানের জুটি গড়েন দুইজন। ৬ চার ৫৪ রান করা ইব্রাহিমকে ফিরিয়ে তাদের প্রতিরোধ ভাঙেন আসিথা। কয়েক ওভার পর আরেক থিতু ব্যাটসম্যান রেহমাতকে এলবিডব্লিউ করে দেন হাসারাঙ্গা। ৭ চারে ৬৯ বলে ৬৩ রান করেন রেহমাত। এরপর যেন চোখের পলকে শেষ হয়ে যায় সফরকারীদের ইনিংস। হাশমাতউল্লাহ শাহিদিকে বোল্ড করে দেন হাসারাঙ্গা। ছন্দে থাকা আজমতউল্লাহ ওমারজাই, মোহাম্মাদ নাবি, গুলবাদিন নাইবরা করতে পারেননি কিছু। দলটির শেষ ৮ ব্যাটসম্যানের কেউই যেতে পারেননি দুই অঙ্কে।

দ্বিতীয়ভাগের মতো ম্যাচের প্রথম অংশেও ছিল লঙ্কানদের দাপট। টস জিতে ব্যাটিং নিয়ে শুরুতে অবশ্য ধাক্কা খায় তারা। ৩৬ রানে দুই ওপেনারকে হারিয়ে ফেলে দলটি। সেখান পরের চার ব্যাটসম্যানের সম্মিলিত চেষ্টায় বড় সংগ্রহ পায় স্বাগতিকরা। সামারাউইক্রামাকে নিয়ে ১০৩ রানের জুটি গড়েন মেন্ডিস। ৩ চারে ৫২ রান করা সামারাউইক্রামাকে ফিরিয়ে তাদের প্রতিরোধ ভাঙেন লেগ স্পিনার কাইস আহমেদ। পরের ওভারে ওমারজাই বিদায় করেন ১ ছক্কা ও ৬ চারে ৬১ রান করা মেন্ডিসকে।

এরপর দলকে আরেকটি শতরানের জুটি এনে দেন আসালাঙ্কা ও লিয়ানাগে। দুটি করে ছক্কা-চারে ঠিক ৫০ রান করে লিয়ানাগে ফিরলে সমাপ্তি ঘটে তাদের ৯৮ বল স্থায়ী ১১১ রানের জুটির। হাসারাঙ্গাকে নিয়ে ৫০ রানের জুটি গড়েন আসালাঙ্কা। যেখানে অগ্রণী ছিলেন তিনি। আগ্রাসী ব্যাটিংয়ে রান বাড়ালেও তিন অঙ্কের উষ্ণ ছোঁয়া পাননি তিনি ওভার শেষ হয়ে যাওয়ায়। আগামী বুধবার সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডেতে মুখোমুখি হবে দুই দল।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

শ্রীলঙ্কা: ৫০ ওভারে ৩০৮/৬ (নিসাঙ্কা ১৮, আভিশকা ৫, মেন্ডিস ৬১, সামারাউইক্রামা ৫২, আসালাঙ্কা ৯৭*, লিয়ানাগে ৫০, হাসারাঙ্গা ১৪; ফারুকি ১০-১-৫৫-১, ওমারজাই ১০-০-৫৬-৩, নাবি ১০-০-৩৮-০, নাইব ৫-০-৪৮-০, নুর ৮-০-৫৪-১, কাইস ৭-০-৫৫-১)

আফগানিস্তান: ৩৩.৫ ওভারে ১৫৩ (গুরবাজ ৮, ইব্রাহিম ৫৪, রেহমাত ৬৩, শাহিদি ৯, ওমারজাই ৩, নাবি ১, ইকরাম ৪, নাইব ০, কাইস ১, নুর ০, ফারুকি ০*; মাদুশাঙ্কা ৭-১-২৮-২, মাদুশান ৬-০-৩৭-১, আসিথা ৬-০-২৩-২, থিকশানা ৬-০-২৫-০, লিয়ানাগে ২-০-১৩-০, হাসারাঙ্গা ৬.৫-০-২৭-৪)

ফল: শ্রীলঙ্কা ১৫৫ রানে জয়ী

ম্যান অব দা ম্যাচ: চারিথ আসালাঙ্কা

সিরিজ: ৩ ম্যাচের সিরিজে ২-০ তে এগিয়ে লঙ্কানরা

  • সর্বশেষ - খেলাধুলা