, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ অনলাইন সংস্করণ

গাজায় প্রাণহানি ৩৩ হাজার ছুঁই ছুঁই, ২৪ হাজারই নারী-শিশু

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

  প্রকাশ : 

গাজায় প্রাণহানি ৩৩ হাজার ছুঁই ছুঁই, ২৪ হাজারই নারী-শিশু

প্রায় ছয় মাস ধরে ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় বর্বর আগ্রাসন চালাচ্ছে ইসরায়েল। এতে ওই উপত্যকায় নিহতের সংখ্যা প্রায় ৩৩ হাজারে পৌঁছেছে। এর মধ্যে নারী ও শিশুর সংখ্যাই ২৪ হাজারের বেশি। এছাড়া দীর্ঘ এই আগ্রাসনে আহত ফিলিস্তিনিদের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৭৫ হাজার ৫০০।

গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত বছরের ৭ অক্টোবর থেকে গাজায় ইসরায়েলি হামলায় রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত কমপক্ষে ৩২ হাজার ৯৭৫ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে। এর মধ্যে ২৪ হাজারেরও বেশি ফিলিস্তিনি নারী ও শিশু। একই সময়ে আহত হয়েছে আরও ৭৫ হাজার ৫৭৭ জন।

গাজার সরকারি মিডিয়া অফিস বলেছে, গত বছরের ৭ অক্টোবর থেকে ইসরায়েলি সেনাবাহিনী গাজা উপত্যকায় ২ হাজার ৯২২টি গণহত্যা চালিয়েছে। আর এর জেরে গাজায় মোট ১৪ হাজার ৫০০ শিশু এবং ৯ হাজার ৫৬০ নারী নিহত হয়েছে। এছাড়া আরও ৭ হাজার মানুষ ধ্বংসস্তূপের নিচে আটকে আছেন বা নিখোঁজ রয়েছে এবং ইসরায়েলি হামলায় ৭৫ হাজার ৫৭৭ জন আহত হয়েছে।

মিডিয়া অফিস আরও বলেছে, গাজায় ইসরায়েলি হামলার মুখোমুখি হওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে ৭৩ শতাংশই নারী ও শিশু। এছাড়া গাজায় ১৭ হাজার শিশু তাদের পিতামাতা বা উভয়ের যেকোনও একজন ছাড়াই বসবাস করছে।

গাজার অনাহারের কথা স্মরণ করিয়ে দিয়ে মিডিয়া অফিস বলেছে, অপুষ্টি ও পানিশূন্যতার কারণে গাজায় এখন পর্যন্ত ৩০ জন শিশু প্রাণ হারিয়েছে। এতে আরও বলা হয়, ৪৮৪ স্বাস্থ্যসেবা কর্মী, ১৪০ সাংবাদিক এবং ৬৫ সিভিল ডিফেন্স কর্মীও ইসরায়েলি হামলায় নিহত হয়েছে। এছাড়া গুরুতর অসুস্থ এবং বিদেশে চিকিৎসার প্রয়োজন এমন আহতদের সংখ্যা ১১ হাজার এবং ১০ হাজার ক্যান্সার রোগী অপর্যাপ্ত স্বাস্থ্যসেবার কারণে মৃত্যুর ঝুঁকিতে রয়েছে।

  • সর্বশেষ - আন্তর্জাতিক