ময়মনসিংহ, , ২৮ বৈশাখ ১৪২৮ অনলাইন সংস্করণ

বাল্যবিয়ের দায়, কাজির সহকারী ও বরের মাকে জরিমানা

বাল্যবিয়ের দায়, কাজির সহকারী ও বরের মাকে জরিমানা

ফাইল ছবি

শেরপুরে বাল্য বিয়ে পড়ানোর দায়ে কাজীর সহকারী ও বরের মাকে জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। শুক্রবার (২৫ ডিসেম্বর) রাতে নকলা উপজেলার পাঠাকাটা ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে।


উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জাহিদুর রহমান ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে এ জরিমানা করেন।


পাঠাকাট ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান মুহাম্মদ ফয়েজ মিল্লাত জানান, প্রায় দেড় মাস আগে ইউনিয়নের বহুর্দী গ্রামের ২০ বছর বয়সী রাজু মিয়ার সঙ্গে পারিবারিকভাবে পাঠকাটা গ্রামের সপ্তম শ্রেণি পড়ুয়া এক স্কুলছাত্রীর গোপনে মৌখিকভাবে বিয়ে হয়। এলাকায় ঘটনা জানাজানি হলে শুক্রবার রাতে রাজুর বাড়িতে পাঠানো হয় ওই স্কুলছাত্রীকে। সেখানে স্থানীয় ঝিকরুল কাজির সহকারী আবু বক্কর সিদ্দিককে ডেকে তাদের বিয়ে নিবন্ধন করানো হয়।


পরে খবর পেয়ে ইউপি চেয়ারম্যান ফয়েজ ও নকলা থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আবদুস সাত্তারের সহযোগিতায় রাজুর বাড়িতে অভিযান চালান ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী বিচারক ও ইউএনও জাহিদুর। সেখানে রেজিস্ট্রি বইসহ আটক করা হয় কাজিকে। পরে বাল্যবিয়ে নিরোধ আইনে রাজুর মা ও কাজী আবু বক্করকে ২৫ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়।


ইউএনও জাহিদুর বলেন, ‘২০১৮ সালের ৩০ এপ্রিল থেকে নকলাকে বাল্যবিয়ে মুক্ত উপজেলা হিসেবে ঘোষণা করা হয়। সুতরাং এই উপজেলায় এ ধরনের ঘটনা কোনোভাবেই কাম্য নয়।’

  • সর্বশেষ - মহানগর