ময়মনসিংহ, , ২৮ বৈশাখ ১৪২৮ অনলাইন সংস্করণ

সুদখোরের হাত থেকে ছেলেকে বাঁচাতে গিয়ে মারা গেলেন মা

সুদখোরের হাত থেকে ছেলেকে বাঁচাতে গিয়ে মারা গেলেন মা

ময়মনসিংহের নান্দাইলে মারধরের সময় সুদখোরের হাত থেকে ছেলেকে বাঁচাতে গিয়ে মারা গেলেন বৃদ্ধা মা।


গতকাল বুধবার (১০ মার্চ) রাত ৯টার দিকে ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার মোয়াজ্জেমপুর ইউনিয়নের পূর্ব সৈয়দগাঁও গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত আম্বিয়া খাতুন উপজেলার মোয়াজ্জেমপুর ইউনিয়নের পূর্ব সৈয়দগাঁও গ্রামে আশরাফ আলীর স্ত্রী।


স্থানীয়দের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, নিহত আম্বিয়া খাতুনের ছেলে মোর্শেদ আলী চামটা গ্রামের শাহজাহান মিয়ার কাছ থেকে দৈনিক সুদে ৫ হাজার টাকা ধার নেন। সুদের টাকা নিয়ে গতকাল বুধবার রাতে বাড়ির সামনে চামটা-কালেঙ্গা সড়কে শাহজাহান মোর্শেদকে মারধর করেন। এ সময় মা আম্বিয়া খাতুন (৭০) ছেলেকে বাঁচাতে গেলে শাহজাহানের ধাক্কায় আম্বিয়া খাতুন মাটিতে লুটিয়ে পড়েন।


পরে আম্বিয়া খাতুনকে আহত অবস্থায় হাসপাতালে নেয়ার পথে শাহজাহানের নেতৃত্বে চামটা বাজার এলাকায় আবারও তাদের গাড়ি আটকে মোর্শেদকে মারধর করে। এতে আম্বিয়া খাতুন আরও অসুস্থ হয়ে পড়ে। এ সময় শাহজাহান বাহিনীর হামলায় মোর্শেদসহ তার ভাই আব্দুল মতিন (৩০) ও আবুল কালাম (৫০) আহত হন। পরে স্থানীয়দের সহায়তায় নান্দাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আম্বিয়া খাতুনকে মৃত ঘোষণা করেন।


বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মাহমুদুর রশিদ বলেন, ‘হাসপাতালে আনার আগেই ওই বৃদ্ধা মারা গেছেন। তবে কারও আঘাতে বা স্ট্রোক করে মারা গেছে কি-না বিষয়টি ময়নাতদন্তের পর বলা যাবে।’


বৃহস্পতিবার দুপুরে এ বিষয়ে নান্দাইল মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ মিজানুর রহমান আকন্দ বলেন, ‘মরদেহ ময়নাতদন্ত করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।’

  • সর্বশেষ - মহানগর