ময়মনসিংহ, , ২৪ বৈশাখ ১৪২৮ অনলাইন সংস্করণ

সারাদিনে প্রচুর কফি পান করছেন? জানুন ক্ষতিকর দিক

  নিজস্ব প্রতিবেদক

  প্রকাশ : 

সারাদিনে প্রচুর কফি পান করছেন? জানুন ক্ষতিকর দিক

কফি’ দুই অক্ষরের এই ছোট্ট শব্দটির সঙ্গে আমরা সকলেই পরিচিত। অফিসের স্ন্যাক্সে হোক কিংবা সকালের ব্রেকফাস্ট অথবা বিকেলের আড্ডা এক কাপ কফি না হলে ঠিক যেন জমে না। আবার অনেকে একটানা বিরামহীন ভাবে কাজ করতে গিয়ে সারাদিনে কয়েক কাপ কফিও পান করে ফেলেন। তবে সারাদিনে প্রচুর কফি পান স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে।

আমেরিকান ভিত্তিক একটি গবেষণা সংস্থা তাদের স্বাস্থ্য সংক্রান্ত জার্নালে জানিয়েছে, ঘুম থেকে উঠে যদি আপনি সরাসরি কফি পান করেন তাহলে রক্তে কোলেস্টেরলের মাত্রা বেড়ে যেতে পারে । শুধু তাই নয়, সারারাত শরীরে নানা রকম রাসায়নিক প্রক্রিয়া চলার কারণে পাকস্থলিতে অতিরিক্ত অ্যাসিড ক্ষরণ হয়। এই অবস্থায় খালি পেটে কফি খেলে বমির মতো সমস্যা দেখা দিতে পারে। আবার অনেকেই রাতের খাবারের আগে কফি খেতে পছন্দ করেন কারণ এতে রাতের ঘুমের ব্যাঘাত ঘটে। আমাদের নার্ভকে ক্ষতিগ্রস্ত করে দেয় এই ক্যাফেইন।

এছাড়াও কাজের ফাঁকে হোক সারাদিনে দু চার কাপ কফি অনেকেই খেয়ে ফেলেন। কিন্তু স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা এ বিষয়ে বলছেন সারাদিনে দু কাপের বেশি কফি খাওয়া যাবে না।সারাদিনে দু,এক কাপের বেশি কফি পান করা শরীরের পক্ষে মোটেও ভালো নয় বরং একটানা বেশি কফি পানের অভ্যাস বজায় থাকলে হতে পারে নানা শারীরিক সমস্যা, কমে যেতে পারে ঘুমের পরিমাণ, বাড়তে পারে স্ট্রেস। ফলে কফি পানের যেমন প্রয়োজন আছে এ কথা সত্য কিন্তু যা প্রয়োজন বুঝে।

এছাড়াও কারণে অকারণে চা, কফি বা বিভিন্ন সফট ড্রিংকস খাওয়ার অভ্যাস ত্যাগ করতে হবে। না হলে শরীরে মেদ যেমন বাড়বে তেমনই রোগব্যাধি বাড়বে। যত কাজের চাপই থাকুক না কেন রাতে অন্তত ৮ থেকে ৯ ঘন্টা ঘুমানের অভ্যাস করুন। সারাদিন টুকটাক কাজের ফাঁকে চা কফিতে চুমুক না দিয়ে পুষ্টিকর খাবার খান। শুধু তাই নয়, মানসিক চাপ কমাতে চা কফির বদলে ইয়োগা করতে পারেন। নিয়মিত শরীরচর্চা করুন উপকার মিলবে অনেক।

সূত্র : জি নিউজ

  • সর্বশেষ - ফিচার