ময়মনসিংহ, , ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮ অনলাইন সংস্করণ

গাইবান্ধায় কাল বৈশাখী ঝড়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৭

  নিজস্ব প্রতিবেদক

  প্রকাশ : 

গাইবান্ধায় কাল বৈশাখী ঝড়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৭

আজ বিকেলে আচমকা ঝড়ো ও দমকা হাওয়ায় গাইবান্ধার সাত উপজেলার বিভিন্ন এলাকার অসংখ্য বসতবাড়ি ও গাছপালা ভেঙে পড়াসহ ফসলের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। ঝড়ের কবলে ঘর ও গাছের চাপা পড়ে মৃত্যু হয়েছে শিশু ও নারীসহ ৭ জনের। এছাড়া আহত হয়েছেন অন্তত ৩০ জনের বেশি মানুষ।


এদিকে নিহতরা হলেন, পলাশবাড়ি উপজেলার গোফফার রহমান (৪২) ও জাহানারা বেগম (৪৮), সুন্দরগঞ্জ উপজেলার ময়না বেগম (৪০), ফুলছড়ি উপজেলার হারিস মিয়া (৩২) ও শিমুলি আকতার (২৭), সাদুল্লাপুর উপজেলার আবদুস ছালাম সর্দার (৪৫), সদর উপজেলার শিশু মনির মিয়া (৫)।


এর মধ্যে গাছের চাপা পড়ে মৃত্যু হয় শিশু মনির, গোফফার, জাহানারা ও ময়না বেগমের। ঘরের নিচে চাপা পড়ে শিমুলি আকতার ও অটোরিকশা উল্টে মৃত্যু হয় হারিস মিয়ার। এছাড়া দোকান থেকে বাড়ি ফিরেই মৃত্যু হয়েছে আবদুস ছালামের।


প্রচণ্ড গতির দমকা ঝড়ে সদর, সুন্দরগঞ্জ, পলাশবাড়ী ও সাদুল্লাপুর উপজেলাসহ প্রত্যন্ত এলাকার বিদ্যুতের খুঁটি ও তার ছিঁড়ে গেছে। এতে বিদ্যুৎ সরবরাহ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ায় ভুতুড়ে অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে জেলাজুড়েই। জেলায় বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ রয়েছে। ফলে দীর্ঘসময় অন্ধকার অবস্থার কারণে চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন জেলার সর্বস্তরের মানুষ।

  • সর্বশেষ - সারাদেশ