ময়মনসিংহ, , ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮ অনলাইন সংস্করণ

মামুনুলের বিষয়ে কী সিদ্ধান্ত নিচ্ছে হেফাজত?

  নিজস্ব প্রতিবেদক

  প্রকাশ : 

মামুনুলের বিষয়ে কী সিদ্ধান্ত নিচ্ছে হেফাজত?

চট্টগ্রাম, ১১ এপ্রিল – চট্টগ্রামের দারুল উলুম মঈনুল ইসলাম হাটহাজারী মাদ্রাসায় হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের নেতারা সংগঠনটির যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হকের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে এক জরুরি বৈঠকে বসেছেন। হেফাজতের অন্যতম এক শীর্ষনেতা এ তথ্য জানিয়েছেন।


রবিবার বেলা সাড়ে ১১টায় বৈঠকটি শুরু হয় বলে জানান হেফাজতের কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক মাওলানা জাকারিয়া নোমান ফয়জী। তবে বৈঠকের বিষয় সম্পর্কে কিছু বলতে রাজি হননি তিনি।


তবে ‘দ্বিতীয় স্ত্রী’সহ সোনারগাঁওয়ে রয়েল রিসোর্ট কাণ্ডে বিতর্কিত দলের এই শীর্ষ নেতার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে হাটহাজারী মাদ্রাসায় হেফাজত নেতাদের এই বৈঠক বলে জানিয়েছেন সংগঠনিটির এক শীর্ষ নেতা।


সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সূত্র জানিয়েছে, হেফাজতের আমির ও হাটহাজারী মাদ্রাসার শিক্ষা পরিচালক জুনায়েদ বাবুনগরীরর সভাপতিত্বে সভায় সংগঠনের অর্ধশতাদিক নেতাকর্মী উপস্থিত আছেন।


এদিন সকালে প্রথম দফা বৈঠকে কোনো সিদ্ধান্ত না আসায় দ্বিতীয় দফা বৈঠকে বসেছেন নেতৃবৃন্দ।


তবে হেফাজতের এক শীর্ষ নেতা নিজের নাম পরিচয় গোপন রাখার শর্তে বলেন, সম্প্রতি ঘটে যাওয়া হেফাজতের অনেক বিষয় এই বৈঠকে আলোচনা হবে। সম্প্রতি আন্দোলনে বিভিন্ন জেলায় আটক ও মামলার শিকার নেতাকর্মীদের মুক্ত করতে নতুন কর্মসূচিও আসতে পারে।


তিনি আরও বলেন, আমাদের সংগঠনের একজন শীর্ষ নেতাকে নিয়ে অনেক জল ঘোলা হচ্ছে। শীর্ষ নেতৃবৃন্দ এই বিষয়ে চিন্তিত। কারণ এই ঘটনায় হেফাজতের অবস্থান ক্ষুন্ন হয়েছে, দেশের মানুষের কাছে ভাবমূর্তি নষ্ট হয়েছে সংগঠনটির। তাই মামুনুল হকের বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত আসতে পারে।


অন্যদিকে দলটির সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল হক ইসলামাবাদী গণমাধ্যমকে জানান, হাটহাজারি বৈঠকের প্রধান এজেন্ডা দেশের বিভিন্ন স্থানে নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া মামলা ও গ্রেপ্তারের বিষয়টি। এছাড়া যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হকের বিষয়ে আলোচনা হতে পারে বলেও জানান তিনি।


তবে হেফাজতের এই বৈঠকের বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ কিছু তথ্য দিয়েছেন একজন মুরুব্বি। তিনি জানান, মামুনুল হককে হেফাজতে সপদে বহাল রাখতে মরিয়া সংগঠনের জামায়াতপন্থি নেতারা। তারা মনে করেন বিষয়টি একান্তই তার ব্যক্তিগত। এর সঙ্গে সংগঠনের কোনো যোগসূত্র নেই।


তবে মামুনুলের কর্মকাণ্ডে সংগঠনসহ আলেম সমাজের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হয়েছে বলেও মনে করেন হেফাজতের একটি অংশ। তাদের দাবি, অন্তত হেফাজতের ভাবমূর্তি রক্ষা করতে হলেও দল থেকে মামুনুল হককে পদচ্যুত করা হোক। নইলে অন্তত তাকে নিষ্ক্রিয় করার দাবি তাদের।‌


সূত্র : ঢাকাটাইমস

  • সর্বশেষ - সারাদেশ