, ৫ আষাঢ় ১৪২৮ অনলাইন সংস্করণ

ঋষি কাপুরের মৃত্যুবার্ষিকী : স্মৃতিচারণে আবেগ আপ্লুত স্ত্রী

  বিনোদন ডেস্ক

  প্রকাশ : 

ঋষি কাপুরের মৃত্যুবার্ষিকী : স্মৃতিচারণে আবেগ আপ্লুত স্ত্রী

বলিউডের এক সময়ের তুমুল জনপ্রিয় নায়ক ঋষি কাপুরের প্রথম প্রয়াণ দিবস আজ। এদিনে প্রিয় তারকাকে স্মরণ করছেন হিন্দি সিনেমার দর্শকেরা৷


ইনস্টাগ্রামে তার স্ত্রী নিতু কাপুরও ঋষিকে মনে করেছেন সাদাকালো যুগল ছবি শেয়ার করে। তিনি লিখেছেন, ‘সারা বছরই দুঃখ ও বেদনায় কেটেছে। তার আরও কারণ আমরা তোমাকে হারিয়েছি। এমন একটাও দিন নেই যেদিন আমরা তোমার সঙ্গে পার করা সময়ের কথা শেয়ার করিনি। কখনো জীবনদর্শন, কখনো জোকস, কখনো নানা গল্প। জীবন চলতে থাকবে, তবে তোমার সঙ্গে যেমন ছিল তেমনটা আর কখনো হবে না।’


প্রসঙ্গত, ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে গত বছরের ৩০ এপ্রিল মৃত্যুবরণ করেন ঋষি কাপুর। ৬৭ বছর বয়স হয়েছিলো তার।


ঋষির জন্ম ১৯৫২ সালের ৪ সেপ্টেম্বর বকউডের বিখ্যাত কাপুর পরিবারে। তিনি অভিনেতা প্রযোজক রাজ কাপুরের দ্বিতীয় সন্তান। অভিনেতা পৃথীরাজ কাপুরের নাতি। রণবীর কাপুরের বাবা।


১৯৭০ সালে বাবা রাজ কাপুর পরিচালিত আলোচিত সিনেমা ‘মেরা নাম জোকার’ সিনেমায় শিশুশিল্পী হিসেবে বলিউডের রুপালী আলোয় আসা। এতে অভিনয় করে শিশুশিল্পী হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্রে পুরস্কার জিতে নেন।


নায়ক হিসেবে প্রথম অভিনয় করার সুযোগ পান রাজ কাপুর পরিচালিত ‘ববি’ সিনেমায়। ১৯৭৩ সালে এই সিনেমায় অভিনয়ের জন্য ফিল্মফেয়ার শ্রেষ্ঠ অভিনেতার পুরস্কার লাভ করেন। ‘ববি’ সিনেমার প্রিমিয়ার শোতে উপস্থিত ছিলেন বিখ্যাত পরিচালক সত্যজিৎ রায়।


ঋষি কাপুর ১৯৭৩ থেকে ২০০০ সাল পর্যন্ত অনেক সিনেমায় প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেন। তার অভিনীত উল্লেখযোগ্য কিছু সিনেমা- ‘ববি’, ‘প্রেম রোগ’, ‘দিওয়ানা’, কভি কভি, ‘অমর আকবর অ্যান্টনি’, ‘বোল রাধা বোল, ‘হেনা’, ‘লাইলি মজনু’, ‘দুনিয়া মে জব ম্যায়’, ‘নাগীনা’, ‘নসীব, ‘লাভ আজকাল’, ‘ফানা’, ‘ইয়ারানা’, ‘হানিমুন’, ‘পাতিয়ালা হাউস‘ ও কাপুর অ্যান্ড সন্স’।


১৯৭৪ সালে নিতু সিংয়ের সঙ্গে ‘জেহরিলা ইনসান’ সিনেমার সেটে প্রথম দেখা হয়েছিল ঋষি কাপুরের। ১৯৮০ সালের ২২ জানুয়ারি বিয়ে করেন তারা।


২০১৯ সালের ১৩ ডিসেম্বর মুক্তিপায় ঋষি কাপুর অভিনীত শেষ সিনেমা ‘দ্য বডি’।

২০০৮ সালে ফিল্মফেয়ারের মঞ্চে ‘লাইফটাইম অ্যাচিভমেন্ট’ অ্যাওয়ার্ড দেওয়া হয় তাকে।

  • সর্বশেষ - বিনোদন