, ৯ শ্রাবণ ১৪২৮ অনলাইন সংস্করণ

ধানমন্ডিতে তিন শিক্ষার্থীকে ছুরিকাঘাত

  নিজস্ব প্রতিবেদক

  প্রকাশ : 

ধানমন্ডিতে তিন শিক্ষার্থীকে ছুরিকাঘাত

রাজধানীর ধানমন্ডি লেকের রবীন্দ্র সরোবর এলাকায় ছিনতাইকারীদের ছুরিকাঘাতে তিন শিক্ষার্থী গুরুতর আহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার (৩ জুন) সন্ধ্যা সোয়া ৬টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন- মো. শামস (২০), সৌরভ (১৯) ও নাবিল। তাদের মধ্যে শামস ও সৌরভ ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে এবং নাবিল শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ছিনতাইকারীরা তাদের মোবাইল ও টাকা ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে। এসময় তারা বাধা দিলে ছিনতাইকারীরা তাদেরকে এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাত করে। পরে তাদের উদ্ধার করে প্রথমে পার্শ্ববর্তী একটি হাসপাতালে নেয়া হয়। পরে সেখান থেকে তাদেরকে ঢামেক ও সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।

আহত মো. শামস বলেন, ‘আমাদের সবার ধানমন্ডির রবীন্দ্র সরোবরে একসঙ্গে হওয়ার কথা ছিল। এজন্য আমরা কয়েক বন্ধু মিলে ধানমন্ডি লেকে যায়। সেখান থেকে রবীন্দ্র সরোবরে যাওয়ার সময় কয়েকজন যুবক আমাকে ডেকে নেয়। আমি তাদের কাছে গেলে ছুরি দেখিয়ে আমার মোবাইল মানিব্যাগ ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে। আমি বাধা দিলে তারা আমার বাম হাতে ও পিঠে ছুরিকাঘাত করে।’

শামসের বন্ধু জহিরুল ইসলাম বলেন, ‘আমাদের কাছ থেকে কিছু ছিনিয়ে নিতে পারেনি। তবে তাদের ছুরিকাঘাতে আমাদের বন্ধু শামস ও সৌরভের অবস্থা ভালো না। সৌরভের পিঠ দিয়ে নাড়ি-ভুড়ি বের হয়ে গেছে।’

গুরুতর আহত সৌরভকে উদ্ধার করা পথচারী তারিকুল ইসলাম বলেন, ‘আমি লেক দিয়ে যাওয়ার সময় দেখি নির্বাচন কমিশন অফিসের সামনে রক্তাক্ত অবস্থায় এক তরুণ পড়ে আছে। পরে আমি তাকে উদ্ধার করে একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাই। সেখান থেকে ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে আসি। জরুরি বিভাগে তার চিকিৎসা চলছে।’

ধানমন্ডি থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) বিপুল কুমার পাল বলেন, ‘ভুক্তভোগীরা বলছেন, তারা ছিনতাইকারীর হামলায় আহত হয়েছেন। তবে ঘটনার মোটিভ দেখে মনে হচ্ছে না যে এটা কোনো সাধারণ ছিনতাইয়ের ঘটনা। আমরা বিষয়টি তদন্ত করে দেখছি। আসলে কী ঘটেছে ওখানে, সেটা জানার চেষ্টা চলছে। আহত দুজনকে ঢামেকে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। তাদের অবস্থা আশঙ্কাজনক।’

ঢামেক হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (পরিদর্শক) মো. বাচ্চু মিয়া জানান, ‘ধানমন্ডি থেকে ছুরিকাঘাতে আহত দুজনকে ঢাকা মেডিকেলে আনা হয়েছে। জরুরি বিভাগে তাদের চিকিৎসা চলছে। ধানমন্ডি থানার পুলিশ ঢাকা মেডিকেলে এসেছে, তারা বিষয়টি তদন্ত করে দেখছে।’

  • সর্বশেষ - সারাদেশ