, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০ অনলাইন সংস্করণ

গোসল ফরজ হলে সেহরি খাওয়া যাবে কি?

  ইসলাম ডেস্ক

  প্রকাশ : 

গোসল ফরজ হলে সেহরি খাওয়া যাবে কি?

স্বামী-স্ত্রী সহবাসের পর গোসল না করে ঘুমিয়ে পড়লে যদি সেহরির সময় হয়ে যায় আর এ সময় গোসল করারও সময় না থাকে তবে গোসল না করে সেহরি খাওয়া যাবে কি? কিংবা গোসল না করে সেহরি খেলে রোজা হবে কি?

রমজান মাসে দিনের বেলা হালাল খাবার থেকে বিরত থাকা এবং বৈধ স্বামী-স্ত্রীর মেলামেশা থেকে দূরে থাকাই রোজার বিধান। কিন্তু রাতের বেলা পানাহার করা যেমন বৈধ তেমনি স্বামী-স্ত্রীর মেলামেশা করাও বৈধ এবং জায়েজ। রমজান মাসে রোজা পালনের উদ্দেশ্যে সেহরি খাওয়া সুন্নত।

হ্যাঁ, কেউ যদি এমন অবস্থায় পড়েন যে, ফরজ গোসল করার সময় নেই; গোসল করতে গেলে সেহরি খাওয়ার সময় শেষ হয়ে যাবে; তবে গোসল না করে শুধু অজু করে বা হাত মুখ ধুয়ে আগে সেহরি খেয়ে নেবেন। পরে ফরজ গোসল করে ফজরের নামাজ আদায় করবেন।

কারণ, সেহরি খাওয়া যেমন ফরজ নয় তেমনি সেহরি খাওয়ার জন্য পবিত্রতা ফরজ নয়। আর নামাজ আদায় করার জন্য পবিত্রতা ফরজ। গোসল ফরজ হলে যত দ্রুত সম্ভব পবিত্র হয়ে নিতে হবে। বিনা ওজরে বেশি সময় অপবিত্র অবস্থায় থাকা সমীচীন নয়।

আর রমজানে রোজা অবস্থায় অধিকক্ষণ অপবিত্র অবস্থায় থাকা মোটেও বাঞ্ছনীয় নয়। এতে রহমতের ফেরেশতাদের কষ্ট হয়। তাই দ্রুত পবিত্রতা অর্জন করা জরুরি। (ফতোয়ায়ে আলমগিরি)

  • সর্বশেষ - আলোচিত খবর