, ২ কার্তিক ১৪২৮ অনলাইন সংস্করণ

ছোট্ট একটি আমলেই মিলবে ৮ বিশেষ মর্যাদা

  নিজস্ব প্রতিবেদক

  প্রকাশ : 

ছোট্ট একটি আমলেই মিলবে ৮ বিশেষ মর্যাদা

ছোট্ট একটি পরিচিত আমল। যাতে মিলবে ৮ বিশেষ মর্যাদা। সকাল-সন্ধ্যা করতে হবে ছোট্ট এ আমলটি। ৮ বিশেষ মর্যাদা লাভের ছোট্ট আমলটি কী?

খুবই গুরুত্বপূর্ণ এ আমলটি ছোট হলেও অনেকের কাছেই পরিচিত। কিন্তু না জানার কারণে অনেকেই এ বিশেষ আমলটি করে না। ফজর ও মাগরিবের নামাজের পর তা পড়ার জন্য নসিহত পেশ করেছেন বিশ্বনবি। হাদিসে পাকে এসেছে-
রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ‘যে ব্যক্তি মাগরিব ও ফজর নামাজ শেষ করার পর চলে যাওয়া বা উভয় পা গুটিয়ে নেওয়ার আগে (তাওহিদের ঘোষণায় ভরপুর) দোয়াটি ১০ বার পড়বে; এর বিনিময়ে মহান আল্লাহ ওই ব্যক্তির জন্য ৮টি বিশেষ মর্যাদা দান করবেন। তাহলো-
لَا إِلَهَ إِلا اللَّهُ وَحْدَهُ لا شَرِيكَ لَهُ ، لَهُ الْمُلْكُ وَلَهُ الْحَمْدُ يُحْيِي وَيُمِيتُ وَهُوَ عَلَى كُلِّ شَيْءٍ قَدِيرٌ
উচ্চারণ : ‘লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু ওয়াহ্‌দাহু লা-শারিকা লাহু; লাহুল মুলকু ওয়া লাহুল ‎হামদু ইয়ুহয়িউ ওয়া ইয়মিতু ওয়া হুয়া আলা কুল্লি শাইয়িন ক্বাদির।’
অর্থ : ‘আল্লাহ ব্যতিত সত্য কোনো উপাস্য নেই; তিনি একক তাঁর কোনো অংশীদার নেই। রাজত্ব ও ক্ষমতার অধিকারী তিনিই, সব প্রশংসার মালিকও তিনি। তিনি জীবন দান করেন ও মৃত্যু দান করেন। তিনি সবকিছুর উপর ক্ষমতাবান।’ ‎(মুসনাদে আহমদ, তিরমিজি, নাসাঈ, ইবনে হিব্বান, তারগিব-তারহিব)

৮ বিশেষ মর্যাদা
১. জান্নাত আবশ্যককারী ১০টি নেকি দান করা হবে।
২. ধ্বংসকারী ১০টি গোনাহ ক্ষমা করে দেওয়া হবে।
৩. ১০টি মর্যাদা বাড়িয়ে দেওয়া হবে।
৪. ‎১০ জন ঈমানদার কৃতদাস মুক্ত করার সমপরিমাণ সাওয়াব দেওয়া হবে। (তিরমিজি, নাসাঈ, ইবনে হিব্বান)
৫. ওই দিনের সব ধরনের অপছন্দনীয় (মুনকার) বস্তু/বিষয় থেকে হেফাজত করা হবে।
৬. সারাদিন ও রাত (ফজরের পর পড়লে সারা দিন এবং মাগরিবের পর পড়লে সারা রাত) বিতাড়িত শয়তানের আক্রমণ থেকে নিরাপদ রাখা হবে। অন্য বর্ণনায় এসেছে, ‘আল্লাহ তাআলা ওই বান্দার জন্য একদল সশস্ত্র ফেরেশতা নিযুক্ত করবেন; যারা ওই ব্যক্তিকে সকাল (নির্ধারিত সময়) পর্যন্ত শয়তানের অনিষ্ট ‎‎থেকে পাহারা দেবেন।‎
৭. শিরক ব্যতিত কোনো গোনাহ তাকে স্পর্শ করার ‎সুযোগ পাবে না।
৮. সে হবে ওই দিন মানুষের মধ্যে সর্বশ্রেষ্ঠ আমলকারী। তবে ওই ব্যক্তির কথা ভিন্ন, যে তার চেয়ে উত্তম হবে অর্থাৎ তার চেয়ে বেশিবার (এ আমল/দোয়া) পাঠ করবে।’

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে ফজর ও মাগরিবের ফরজ নামাজের সালাম ফেরানোর পর বসা থেকে ওঠার আগে ছোট্ট এ আমলটি গুরুত্বসহ করার মাধ্যমে ঘোষিত বিশেষ মর্যাদা লাভের তাওফিক দান করুন। আমিন।

  • সর্বশেষ - অতিথি কলাম