, ৩০ চৈত্র ১৪৩০ অনলাইন সংস্করণ

প্রতিদিন পাঁচ মিনিট দৌড়াবেন যে কারণে

  লাইফস্টাইল ডেস্ক

  প্রকাশ : 

প্রতিদিন পাঁচ মিনিট দৌড়াবেন যে কারণে

আমাদের সুস্থতার জন্য শরীরচর্চার প্রয়োজনীয়তা অনেক। একথা জানা থাকার পরেও সময় করে শরীরচর্চাটুকু আর করা হয়ে ওঠে না। বর্তমান ব্যস্ত সময়ে নিজেকে ভালো রাখাটাই যে বড় চ্যালেঞ্জ! বিশেষজ্ঞরা বলছেন, দিনে অন্তত পাঁচ মিনিট দৌড়ান। কিন্তু একথা তারা কেন বলছেন? নিশ্চয়ই এর পেছনে কারণ রয়েছে। 

যেহেতু শরীরচর্চার জন্য পর্যাপ্ত সময় মিলছে না তাই অন্তত পাঁচ মিনিট ব্যয় করুন দৌড়ের জন্য। এতে শারীরিক ও মানসিক স্বাস্থ্য ভালো থাকবে। কারণ এক্ষেত্রে দৌড় খুব কার্যকরী। চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক প্রতিদিন পাঁচ মিনিট দৌড়ানোর উপকারিতা-

বাড়তি ক্যালোরি ঝরাতে সাহায্য করে

শরীরচর্চা করলে তা বাড়তি ক্যালোরি ঝরাতে দারুণভাবে কাজ করে। একেবারেই না করার চেয়ে অল্প হলেও শরীরচর্চা করা উপকারী। দৌড় হলো এক ধরনের কার্যকরী কার্ডিও ব্যায়াম যা ক্যালরি ব্যায়ের শরীর সুস্থ রাখতে কাজ করে। তবে ওজন কমাতে চাইলে কেবল পাঁচ মিনিটের দৌড় যথেষ্ট নয়। তখন আরও বেশি দৌড় প্রয়োজন হবে।

ভালো থাকবে মন

কেবল শারীরিক সুস্থতাই নয়, মন ভালো রাখতেও সমান কার্যকরী হলো দৌড়। সেইসঙ্গে এটি বিষণ্ণতা বা অবসাদও দূর করে। মানসিক স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা মন ভালো রাখার জন্য প্রতিদিন অন্তত পাঁচ মিনিট দৌড়ানোর পরামর্শ দিয়ে থাকেন। তাই আপনার যদি কোনো কারণে মন খারাপ হয়, কিছুটা সময় দৌড়ান। 

রক্তে শর্করার মাত্রা কমায়

ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হলে রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে আমরা সচেতন হই। তবে কেবল এক্ষেত্রেই নয়, যেকোনো ব্যক্তির জন্যই রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখা জরুরি। আর এই কাজে প্রতিদিন পাঁচ মিনিটের দৌড়ই যথেষ্ট ভূমিকা রাখতে পারে।

ঘুম ভালো হয়

পর্যাপ্ত ঘুমের অভাবে নানা সমস্যা দেখা দিতে পারে। ঘুম কম হলে তার প্রভাব পড়ে শরীর ও মনে। নিদ্রাহীনতা দূর করার ক্ষেত্রে আপনাকে সাহায্য করতে পারে প্রতিদিন পাঁচ মিনিটের দৌড়। তাই ঘুমে সমস্যা থাকলে আপনিও এই টোটকা কাজে লাগাতে পারেন।

হৃদরোগের ঝুঁকি কমায়

বিশ্বজুড়ে হঠাৎ মৃত্যুর অন্যতম প্রধান কারণ হলো হৃদরোগ। তবে প্রতিদিন অন্তত পাঁচ মিনিট দৌড়ের অভ্যাস থাকলে তা হৃদরোগে মৃত্যুহার অর্ধেকে কমিয়ে আনতে পারে। আমেরিকান কলেজ অফ কার্ডিওলজিতে প্রায় ৫৫ হাজার প্রাপ্তবয়স্কদের ওপর করা এক গবেষণায় দেখা গেছে যে, যারা ১৫ বছর ধরে বিভিন্নভাবে শরীরচর্চার জন্য সময় ব্যয় করছেন তাদের হৃৎপিণ্ড ও ফুসফুস বেশি তুলনামূলক সুস্থ।

  • সর্বশেষ - লাইফ স্টাইল