, ২১ মাঘ ১৪২৯ অনলাইন সংস্করণ

প্রেমিকের প্রতারণা ধরা পড়লে যা করবেন

  লাইফস্টাইল ডেস্ক

  প্রকাশ : 

প্রেমিকের প্রতারণা ধরা পড়লে যা করবেন

সবগুলো লক্ষণ যখন আপনার প্রেমিকের অবিশ্বস্ততার সাক্ষ্য দেয়, পরবর্তী বিষয়গুলো আপনার জন্য আরও কঠিন হয়ে উঠতে পারে। প্রতারক প্রেমিকের সঙ্গে সম্পর্ক চালিয়ে যাওয়া নিশ্চয়ই সহজ কিছু নয়! এটি আপনার আবেগকে ধ্বংস করে দিতে পারে। হয়তো বুঝে উঠতে পারবেন না যে এই অবস্থায় আপনার কী করা উচিত। কারণ এটি আপনাদের সম্পর্কটিকে অকল্পনীয়ভাবে বদলে দেবে। প্রেমিক যদি প্রতারণা করে তবে আপনার করণীয়গুলো জেনে নিন-

কান্না করুন

আপনি যদি চিৎকার করেও কাঁদেন, সেটি ভুল কিছু নয়। হৃদয় এবং বিশ্বাস ভেঙে গেলে শোক প্রকাশের মাত্রা থাকে না। কান্না করা মানে দুর্বলতা নয় বরং এটি আপনাকে আরও বিস্তৃতভাবে প্রকাশ করতে সাহায্য করে। যদি আপনার হৃদয় চিৎকার করতে চায় তবে তাকে তা করতে দিন।

আপনজনদের সঙ্গে কথা বলুন

এরপর আপনি আপনার আপনজনের সঙ্গে যোগাযোগ করুন। তাদের বিশ্বাস করুন এবং নিজের অনুভূতিগুলো জানান। এই পরিস্থিতিতে কী করা যায় সে বিষয়ে তাদের পরামর্শ নিন। তাদের সঙ্গে কথা বলে আপনি আগের থেকে ভালো অনুভব করবেন। সেইসঙ্গে তারা আপনাকে আপনার পরবর্তী করণীয় সম্পর্কে ভালো কোনো পরামর্শ দিতে পারবে।

পরিস্থিতি বোঝার চেষ্টা করুন

যখন বুঝতে পারবেন যে সত্যিই আপনি প্রতারিত হয়েছেন তখন বোঝার চেষ্টা করুন কেন এটি ঘটেছে। কেন আপনার প্রেমিক প্রতারণা করলো? এই প্রতারণার পেছনে তার উদ্দেশ্য আসলে কী ছিল? বিষয়টি সব দিয়ে ভেবে দেখার চেষ্টা করুন।

এটি আপনার দোষ নয়

প্রেমিক প্রতারণা করে সেজন্য নিজেকে দায়ী মনে করেন অনেকে। আপনিও হয়তো এমনটা ভাবতে পারেন কারণ আপনি থাকার পরও আপনার প্রেমিক অন্য কারও মাঝে আনন্দ খুঁজতে গিয়েছে। তাই এ ধরনের চিন্তা মাথায় আসা খুবই স্বাভাবিক। কিন্তু এটি মোটেও আপনার দোষ নয়। একদমই নয়।

আপনার করণীয় সম্পর্কে বুঝুন

বর্তমান পরিস্থিতি আপনার করণীয় সম্পর্কে ভালোভাবে চিন্তা করে সিদ্ধান্ত নিন। আপনি কি প্রেমিককে ছেড়ে থাকতে পারবেন নাকি তাকে ক্ষমা করে দেবেন? আপনার সিদ্ধান্তের পরিণতি সম্পর্কে ভালোভাবে ভেবে নিন।

প্রতিশোধ নেবেন না

প্রতিশোধ নেওয়াটাকে এই মুহূর্তে আপনার কাছে খুব ভালো সিদ্ধান্ত মনে হলেও সারাজীবন এর জন্য অনুশোচনা হতে পারে। এতটা নিচে নামবেন না যেখানে প্রেমিক বা অন্য কারও সঙ্গে প্রতারণা করে প্রতিশোধ নিতে হয়! আপনিও তার মতো হবেন না। মেনে নিন, ক্ষমা করুন অথবা ছেড়ে দিন।

  • সর্বশেষ - লাইফ স্টাইল