, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০ অনলাইন সংস্করণ

শুক্রবার এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষা, মানতে হবে যেসব নির্দেশনা

  নিজস্ব প্রতিবেদক

  প্রকাশ : 

শুক্রবার এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষা, মানতে হবে যেসব নির্দেশনা

আগামীকাল শুক্রবার (১০ মার্চ) দেশের সব মেডিকেল কলেজে ২০২২-২৩ শিক্ষাবর্ষে এমবিবিএস প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। সকাল ১০টায় শুরু হবে ১ ঘণ্টার এ ভর্তি পরীক্ষা। শুক্রবার সকাল ১০টায় দেশের ১৮টি সরকারি মেডিকেল কলেজ ও একটি ডেন্টাল কলেজের মোট ৫৭টি ভেন্যুতে এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। বৃহস্পতিবার দুপুরে মেডিকেলে ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়। 

সরকারি ৩৭টি মেডিকেল কলেজে ৪ হাজার ৩৫০ আসনের বিপরীতে ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেবে ১ লাখ ৩৯ হাজার ২১৭ জন ভর্তিচ্ছু। এছাড়া বেসরকারি ৭১ মেডিকেল কলেজে ভর্তিযোগ্য আসন রয়েছে ৬ হাজার ৭৭২টি। সংবাদ সম্মেলনে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক, স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. টিটো মিঞাসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।

পরীক্ষার্থীদের জন্য নির্দেশনা

এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী পরীক্ষার্থীদের প্রবেশপত্র, এইচএসসি/ সমমান পরীক্ষার প্রবেশপত্র/ রেজিস্ট্রেশন কার্ড এবং রিফিল দেখা যায় এমন কালো কালির বলপয়েন্ট কলম নিয়ে নির্ধারিত পরীক্ষাকেন্দ্রে সকাল সাড়ে ৯টার পূর্বেই প্রবেশ করতে হবে। পরীক্ষার হলে মুঠোফোন, ক্যালকুলেটর, হাতঘড়িসহ অন্যান্য ডিজিটাল ডিভাইস নিয়ে প্রবেশ নিষিদ্ধ। ডিভাইস পাওয়া গেলে অথবা কাউকে এ ধরনের কোনো ডিভাইস ব্যবহার করতে দেখা গেলে তার উত্তরপত্র বাতিল বলে গণ্য হবে।

কোনো পরীক্ষার্থী পরীক্ষা চলাকালে দুই কান ঢেকে রাখতে পারবেন না। হল পরিদর্শকেরা উত্তরপত্রে স্বাক্ষর প্রদানের সময় শনাক্তকরণের জন্য প্রয়োজনে পরীক্ষার্থীর মুখমণ্ডলের আবরণ খোলার নির্দেশনা দিতে পারবেন। প্রবেশপত্র অনুযায়ী উত্তরপত্রের নির্দিষ্ট স্থানে স্বাক্ষর প্রদান করতে হবে ও স্পষ্টভাবে নাম লিখতে হবে। উত্তরপত্রের নির্দিষ্ট বৃত্তগুলো ভরাট করা এবং নির্দেশিত স্থানে যথাযথ তথ্য প্রদান ব্যতীত অন্য কোনো স্থানে কিছু লেখা সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ এবং লিখলে উত্তরপত্র বাতিল বলে গণ্য হবে।

পরীক্ষার্থীকে অসুদপায় অবলম্বন, বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে অথবা অন্যের সাহায্য নিতে বা অন্যকে সাহায্য করতে দেখা গেলে সংশ্লিষ্ট পরীক্ষার্থীর বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে এবং তাঁর উত্তরপত্র বাতিল করা হবে। পরীক্ষার্থীকে হল পরিদর্শকের নির্দেশ ও সিদ্ধান্ত মেনে চলতে হবে। পরীক্ষা শেষ না হওয়া পর্যন্ত এবং হল পরিদর্শকের অনুমতি ব্যতীত পরীক্ষার্থীকে পরীক্ষার কক্ষ ত্যাগ করতে দেওয়া হবে না।

  • সর্বশেষ - শিক্ষাঙ্গন