, ২৬ মাঘ ১৪২৯ অনলাইন সংস্করণ

২০টি গাড়ির নিচে ‘লিম্ব স্কেটিং’ করে বিশ্বরেকর্ড

  ফিচার ডেস্ক

  প্রকাশ : 

২০টি গাড়ির নিচে ‘লিম্ব স্কেটিং’ করে বিশ্বরেকর্ড

স্কেটিংয়ের সঙ্গে কমবেশি সবাই পরিচিত। অনেকের দুর্দান্ত সব স্ট্যান্ট হতবাক করে দেয়। এজন্য অনেকেরই শখ আছে স্কেটিং শেখার। তবে এই খেলা শুধু শুখেই সীমাবদ্ধ রাখেনি বরং বিশ্বরেকর্ডের খেতাব এনে নিয়েছে দেশনা নাহারের।

মাত্র ৭ বছর বয়স তার। ২০টি গাড়ির নিচ দিয়ে সবচেয়ে দ্রুত গতিতে স্কেটিং করে গিনেস রেকর্ডে নাম লিখিয়েছে সে। ২০টি গাড়ির নিচ দিয়ে স্কেটিং করতে দেশনা সময় নিয়েছে মাত্র ১৩.৭৪ সেকেন্ড। ভেঙে দিয়েছে ৭ বছর আগের রেকর্ড। যেটি করেছিলেন চীনের ১৪ বছরের কিশোরী। ২০১৫ সালে ২০টি গাড়ির নিচ দিয়ে স্কেটিং করতে তার সময় লেগেছিল ১৪.১৫ সেকেন্ড।

২০টি গাড়ির নিচে ‘লিম্ব স্কেটিং’ করে বিশ্বরেকর্ড

সাধারণ স্কেটিং-এর তুলনায় ‘লিম্ব স্কেটিং’ অনেক বেশি কঠিন। এক্ষেত্রে স্কেটিং জানতে তো হয়ই, পাশাপাশি শরীরকে করে তুলতে হয় অতি নমনীয়। বস্তুত একজন জিমন্যাসটিক্স খেলোয়াড়ের গুণ থাকতে হয় লিম্ব স্কেটারের মধ্যে। তবেই গাড়ির নিচ দিয়ে শরীর গলিয়ে স্কেটিং করা সম্ভব। অনেকেই করছেন এই কাজ। তবে দেশনা তাদের মধ্যে সবচেয়ে ছোট।

ভারতের মহারাষ্ট্রের বাসিন্দা দেশনা নাহার। দেশনা পাঁচ বছর বয়স থেকেই স্কেটিংয় শিখছে। মাত্র দুই বছরে এমন পারদর্শিতা সত্যিই অবাক করেছে সবাইকে। তবে লিম্ব স্কেটিংয়ের জন্য মাত্র ৬ মাস ধরে বিশেষ প্রস্তুতি নিচ্ছিল যে। গত ১৪ জুন দেশনা নাহারকে প্রশংসাপত্র পাঠিয়েছে গিনেস রেকর্ড কর্তৃপক্ষ।

সূত্র: গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস

  • সর্বশেষ - ফিচার