, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ অনলাইন সংস্করণ

ঠাকুরগাঁওয়ে বিএনপির সভায় আ.লীগের হামলা

  নিজস্ব প্রতিবেদক

  প্রকাশ : 

ঠাকুরগাঁওয়ে বিএনপির সভায় আ.লীগের হামলা

নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলায় বিক্ষোভ কর্মসূচির আয়োজন করে জেলা বিএনপি। 

এই কর্মসূচিতে হামলা ও সভাস্থল ভাঙচুর করার অভিযোগ উঠেছে আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ, কৃষক লীগ ও তাঁতী লীগের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে। এতে বিএনপির অর্ধশতাধিক নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। দলীয় কার্যালয়ের ঘণ্টাব্যাপী অবরুদ্ধ ছিলেন জেলা বিএনপির শীর্ষ নেতারা।

বুধবার (২৪ আগষ্ট) সন্ধায় বিএনপির বিক্ষোভ কর্মসূচি শেষে নেতা-কর্মীদের বক্তব্য দেওয়ার সময় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় বালিয়াডাঙ্গী চৌরাস্তা বাজারে থমথমে পরিবেশ বিরাজ করছে। এদিকে নেতা-কর্মীদের অবরুদ্ধ রেখে আওয়ামী লীগ ও তার সহযোগী সংগঠনগুলো পাল্টা বিক্ষোভ মিছিল করে বলে জানান স্থানীয়রা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দলীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে বিকেল ৩টায় পুলিশি বাধা উপেক্ষা করে বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা বিএনপির ডাক দেওয়া বিক্ষোভ মিছিল হয় চৌরাস্তায়। এরপরে দলীয় কার্যালয়ের সামনে সভায় বক্তব্য প্রদান শুরু করেন নেতা-কর্মীরা। অভিযোগ উঠেছে, সভায় স্থানীয় এমপিকে কটাক্ষ করে বক্তব্য দিলে হামলা চালায় আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা।

এ বিষয়ে উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মির্জা ফয়সল বলেন, ‘শান্তিপূর্ণ কর্মসূচির শেষ পর্যায়ে আওয়ামী লীগ ও পুলিশ যৌথভাবে আমাদের ওপর হামলা চালায় এবং ছত্রভঙ্গ করে দেয়। পরে আমরা দলীয় কার্যালয়ের ভেতর অবস্থান নিলে বাইরের সভাস্থল ভাঙচুর করে। আমরা জেলা শীর্ষ নেতা-কর্মীরা প্রায় ২ ঘণ্টা ধরে অবরুদ্ধ ছিলাম। কয়েকবার তারা দলীয় কার্যালয়ের ভেতরে দরজা ভেঙে আমাদের হামলা করার চেষ্টা করেছে।’

এদিকে হামলার অভিযোগ অস্বীকার করে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহাম্মদ আলী বলেন, ‘আমাদের লোকজন কোনো হামলা চালায়নি। বিএনপির কর্মসূচীতে রাজনৈতিক বক্তব্য না দিয়ে ঠাকুরগাঁও থেকে আসা বিএনপি নেত্রী নাজমা আক্তার স্থানীয় এমপিকে (দবিরুল ইসলামকে) জড়িয়ে উস্কানিমূলক বক্তব্য দেওয়ায় বিএনপির মধ্যেই থাকা স্থানীয় এমপির সমর্থকেরা এটার প্রতিবাদ করেছে।’

এ বিষয়ে বালিয়াডাঙ্গী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খায়রুল আনাম বলেন, বিএনপির উস্কানিমূলক বক্তব্যে প্রদানের সময় আওয়ামী লীগ ও তাদের লোকজন হামলা চালায়। পুলিশের সদস্যরা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। পরে পরিবেশ শান্ত হলে দলীয় কার্যালয়ের ভেতর অবরুদ্ধ থাকা বিএনপির নেতা-কর্মীদের উদ্ধার করে ঠাকুরগাঁওয়ে পাঠিয়ে দেয় পুলিশ সদস্যরা।

  • সর্বশেষ - রাজনীতি