, ১২ আষাঢ় ১৪২৯ অনলাইন সংস্করণ

ছুটি শেষ না হতেই ফের ছুটি চাইলেন বিচারপতি ইমান আলী

  নিজস্ব প্রতিবেদক

  প্রকাশ : 

ছুটি শেষ না হতেই ফের ছুটি চাইলেন বিচারপতি ইমান আলী

দেশের সর্বোচ্চ আদালত সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের জ্যেষ্ঠ বিচারপতি মোহাম্মদ ইমান আলী আবারও ছুটি চেয়ে আবেদন করেছেন। ছুটির আবেদনে বলা হয়েছে, লন্ডনে থাকা বৃদ্ধ মায়ের সঙ্গে সময় কাটাতে চান তিনি।

এজন্য ৩১ মার্চ পর্যন্ত চলমান ছুটির মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই আগামী ১৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত ছুটি চেয়ে প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীর কাছে দরখাস্ত জমা দিয়েছেন মোহাম্মদ ইমান আলী।

গত সপ্তাহে ছুটির এ দরখাস্ত পাঠিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টে। এছাড়া গত ২৮ মার্চ এ দরখাস্ত পাঠানো হয়েছে রাষ্ট্রপতির কাছেও। দরখাস্তে তিনি উল্লেখ করেছেন, বৃদ্ধ মায়ের সঙ্গে ছুটি কাটাতে ১৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত তিনি লন্ডনে থাকবেন। একইসঙ্গে অর্জিত ছুটি থেকেই তিনি এ ছুটি কাটাতে চান।

গত ডিসেম্বরে বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীকে দেশের ২৩তম প্রধান বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ দেওয়ার পর ৩১ মার্চ পর্যন্ত ছুটিতে যান আপিল বিভাগের জ্যেষ্ঠ বিচারপতি ইমান আলী। চাকরিবিধি অনুযায়ী, ২০২২ সালের ৩১ ডিসেম্বর তার অবসরে যাওয়ার কথা রয়েছে।

গত এক দশকে আপিল বিভাগে বিচারপতি নিয়োগে সুপারসিডের একাধিক ঘটনা ঘটেছে। ২০১১ সালে জ্যেষ্ঠতা লঙ্ঘন করে বিচারপতি এবিএম খায়রুল হককে প্রধান বিচারপতি নিয়োগ দেওয়া হলে আপিল বিভাগের দুই বিচারপতি ছুটিতে যান। তারা হলেন- বিচারপতি মো. আব্দুল মতিন ও বিচারপতি শাহ আবু নাঈম মোমিনুর রহমান।

একইভাবে বিদায়ী প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনকে ২০১৮ সালের ২ ফেব্রুয়ারি নিয়োগ দেওয়া হলে বিচারপতি মো. আবদুল ওয়াহ্হাব মিয়া পদত্যাগ করেন।

সংবিধান অনুসারে, বিচারপতির পদের মেয়াদ ৬৭ বছর পর্যন্ত। বিচারপতি মোহাম্মদ ইমান আলী অবসরে যাবেন ২০২২ সালের ৩১ ডিসেম্বর। এছাড়া প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী ২০২৩ সালের ২৫ সেপ্টেম্বর, বিচারপতি মো. নূরুজ্জামান ২০২৩ সালের ৩০ জুন এবং বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ২০২৬ সালের ১০ জানুয়ারি অবসরে যাবেন।

  • সর্বশেষ - অন্যান্য