, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ অনলাইন সংস্করণ

মুর্শিদাবাদে হোলি উৎসবে মাতলেন অরিজিৎ সিং

  বিনোদন ডেস্ক

  প্রকাশ : 

মুর্শিদাবাদে হোলি উৎসবে মাতলেন অরিজিৎ সিং

মাথাটা আকাশকে ছুঁলেও পা-টা মাটিতেই রয়েছে। বিপুল অর্থ, বিশ্বজোড়া খ্যাতি, যশ যে তাকে বিন্দুমাত্র বদলে দিতে পারেনি- তা একাধিক ঘটনার মাধ্যমে বার বার প্রমাণ করেছেন এই সময়ে ভারতের অন্যতম সেরা গায়ক অরিজিৎ সিং। 

ইচ্ছে করলেই পারতেন আরব সাগরের তীরে মুম্বাই শহরে বি-টাউনের সেলিব্রিটিদের সঙ্গে রঙের উৎসবে মেতে উঠতে। কিন্তু তা তিনি করেননি। বরং শিকড়ের টানে ফিরে এসেছেন নবাবের জেলা বলে পরিচিত পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদ জেলার জিয়াগঞ্জ শহরে। 

গত সোমবার একটু বেলা হতেই স্ত্রী কোয়েল'কে নিয়ে বেরিয়ে পড়েন স্থানীয় বাসিন্দা, পরিচিত মানুষ এবং ছোটবেলার বন্ধুদের সঙ্গে রঙ, আবীর খেলতে। এদিকে রঙের উৎসবে তার সঙ্গে মেতে ওঠার জন্য সকাল থেকে অপেক্ষার প্রহর গুনছিলেন কচিকাঁচা থেকে বিভিন্ন বয়সের মানুষ। সর্বোপরি বন্ধুরা তো ছিলই। 

বেলা ১২টার দিকে স্ত্রীকে নিয়ে শিবতলার বাড়ি থেকে বের হন গায়ক। প্রথমে তিনি শিবতলা ঘাটে যান। অরিজিৎ সিংকে পেয়ে এলাকাবাসীর দোল উৎসব আরও রঙিন হয়ে ওঠে। আধা ঘণ্টার বেশি সময় ধরে এলাকার বিভিন্ন বয়সের মানুষের সঙ্গে রঙের উৎসবে মেতে ওঠেন তারা। স্থানীয় বাসিন্দা থেকে পথ চলতি মানুষকে তিনি রঙ, আবিরে রাঙিয়ে তোলেন। তাদের কাছ থেকে তিনিও রঙ মাখেন। গায়কের পাশে তার স্ত্রীও ছিলেন। গায়ককে কাছে পেয়ে অল্প বয়সী ছেলেমেয়েরা সেলফি তোলেন। দিনভর ফেস্টিভ মুডে থাকা গায়ক সেলফিতে হাসিমুখে পোজ দেন। 

শিবতলা ঘাট থেকে নিমতলা ঘাটে যান। ওই এলাকায়ও দোল উৎসবে মাতেন। এরপর বেগমগঞ্জ, বাদুরতলা, ভেল্লাডাঙা হয়ে নেহালিয়ায় যান। নেহালিয়া এলাকায় রয়েছে গায়কের স্ত্রী কোয়েল সিং'এর বাবার বাড়ি। শ্বশুরবাড়ির লোকজনের পাশাপাশি স্থানীয়দের সঙ্গে জমিয়ে দোল উৎসবে মাতেন তিনি। বিকেল ৪টার দিকে স্ত্রীকে নিয়ে বাড়ি ফেরেন।

  • সর্বশেষ - বিনোদন