ময়মনসিংহ, , ৩ আশ্বিন ১৪২৭ অনলাইন সংস্করণ

পানির নিচে সব, খাদ্য সঙ্কটে বানভাসিরা

পানির নিচে সব, খাদ্য সঙ্কটে বানভাসিরা

জামালপুরে যমুনা নদীর পানি কমলেও সার্বিক বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত রয়েছে। মঙ্গলবার (২১ জুলাই) সকালে যমুনার পানি ৬ সেন্টিমিটার কমে বাহাদুরাবাদ ঘাট পয়েন্টে বিপৎসীমার ৭৯ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

jamalpur

জানা গেছে, উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢল ও টানা বৃষ্টিতে জেলার সাত উপজেলার আট পৌরসভা ও ৬৮ ইউনিয়নের মধ্যে এখনও ৬০টি ইউনিয়নের ১০ লাখ মানুষ পানিবন্দি জীবনযাপন করছে। তীব্র খাদ্য ও বিশুদ্ধ পানির সঙ্কটে রয়েছেন বানভাসিরা।

এদিকে যমুনার পানি কমলেও সুবর্ণখালী, জিঞ্জিরাম, দশআনীসহ অন্যান্য শাখা নদীর পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে। ফলে পানিতে ডুবে আছে গ্রামীণ হাট-বাজার দোকানপাট, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ ১১ হাজার হেক্টর বিস্তীর্ণ ফসলের মাঠ, গো চারণ ভূমি ও বসতবাড়ি। বন্যায় গো খাদ্যের চরম অভাব দেখা দিয়েছে ।

jamalpur-1

জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা নায়েব আলী জানান, বন্যাকবলিতদের জন্য নতুন করে ১০০ মেট্রিক টন চাল, নগদ ৫ লাখ টাকা এবং দুই হাজার প্যাকেট শুকনো খাবার বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। নিম্নাঞ্চলে পানিতে ডুবে গেছে চার হাজার ৬০০টি নলকূপ ও সাড়ে পাঁচ হাজার ল্যাট্রিন। প্রশাসনের পক্ষ থেকে বন্যা মোকাবিলায় সব ধরনের প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে বলেও তিনি জানান।

  • সর্বশেষ - মহানগর