ময়মনসিংহ, , ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ অনলাইন সংস্করণ

ফোন পেয়ে কর্মহীনদের বাড়িতে খাবার নিয়ে গেলেন শেরপুরের এডিসি

  অনলাইন ডেস্ক

  প্রকাশ : 

ফোন পেয়ে কর্মহীনদের বাড়িতে খাবার নিয়ে গেলেন শেরপুরের এডিসি

করোনাভাইরাসের কারণে সব কিছু বন্ধ থাকায় জনজীবনে দুর্ভোগ নেমে এসেছে। সরকারের নির্দেশে ঘরে অবস্থান করছে নিম্ন আয়ের মানুষ। কর্মহীনদের খাদ্য সংকট নিরসনে ইতোমধ্যে সরকারের পক্ষ থেকে নেয়া হয়েছে বিভিন্ন উদ্যোগ। করোনা প্রতিরোধে তথ্য সেবা ও জরুরি সেবা দিতে শেরপুর জেলা প্রশাসন চালু করেছে কন্ট্রোল রুম। মানুষ করোনা বিষয়ে যে কোনো তথ্য ও প্রয়োজনের কথা জানাচ্ছে কন্ট্রোল রুমে ফোন করে। দ্রুত সময়ের মধ্যেই মিলছে সেবা।

বুধবার (১৫ এপ্রিল) সন্ধ্যায় জেলা প্রশাসনের কন্ট্রোল রুমে ফোন পেয়ে প্রধানমন্ত্রীর খাদ্য উপহার নিয়ে কর্মহীন শ্রমিকদের বাড়িতে গিয়েছেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) এবিএম এহছানুল মামুন। এ সময় কন্ট্রোল রুমের ফোন ও জেলা প্রশাসনের ফেসবুক পেজের ম্যাসেজের তথ্য মতে শতাধিক কর্মহীন শ্রমিক, ও নিম্ন আয়ের মানুষের কাছে খাবার পৌঁছে দিয়েছেন জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা।

এদিকে শেরপুর সদর উপজেলার বিভিন্ন শ্রমিক সংগঠনের তালিকা মোতাবেক শ্রমিকদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে প্রধানমন্ত্রীর খাদ্য উপহার পৌঁছে দেয়া হয়েছে।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) এবিএম এহছানুল মামুন বলেন, শেরপুর পৌর শহরের কয়েকজন কর্মহীন পরিবার থেকে বিকেলে আমাদের কন্ট্রোল রুমে ফোন করে তাদের অবস্থার কথা জানানো হয়। পরে জেলা প্রশাসক মহোদয়ের নির্দেশে সন্ধ্যায় ওই পরিবারসহ শতাধিক নিম্নআয়ের মানুষের বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে আমরা প্রধানমন্ত্রীর দেয়া উপহার খাদ্য সহায়তা পৌঁছে দিয়েছি।

তিনি আরও বলেন, করোনা প্রতিরোধে সাধারণ মানুষের পাশে আছে জেলা প্রশাসন। এই সময় আমাদের সবাইকে সচেতন হতে হবে। কারও কোনো জরুরি প্রয়োজনে সহায়তায় আমাদের কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে। আমরা পরিচয় গোপন রেখে তাদের ঘরে সেবা পৌঁছে দিতে বদ্ধ পরিকর।

  • সর্বশেষ - ময়মনসিংহ অঞ্চল